মূল Health (বাংলা স্বাস্থ্য টিপস) পরিবারে নতুন সদস্য আগমনের আগে সঞ্চয়ের কয়েকটি সহজ টিপস

পরিবারে নতুন সদস্য আগমনের আগে সঞ্চয়ের কয়েকটি সহজ টিপস

পরিবারে নতুন সদস্য আগমনের আগে সঞ্চয়ের কয়েকটি সহজ টিপস

একটা বাচ্চার জন্ম কোনো মুখের কথা নয়। এর সাথে সাথে আগে ও পরে জড়িয়ে রয়েছে অনেক রকম পরিকল্পনা। তা মানসিক হোক বা আর্থিক পরিকল্পনা। তার মধ্যে সব থেকে বড়ো পরিকল্পনা হল আর্থিক পরিকল্পনা। সঠিক আর্থিক পরিকল্পনা ছাড়া একটা বাচ্চাকে ভূমিষ্ঠ করার কথা চিন্তাই করা উচিত নয়। কারণ একজন মা বাবার প্রথম কর্তব্য হচ্ছে বাচ্চাটির সুস্বাস্থ্য নিয়ে পূর্ব পরিকল্পনা নিয়ে রাখা। শুধু সুস্বাস্থ্য না, একই সাথে বাচ্চার বাকি জীবনের চিন্তা, বা তার পরবর্তী জীবন গঠনের সময় যাতে আর্থিক ভাবে কোনো স্বচ্ছলতার অভাব না আসে, সেদিকে সমানভাবে নজর দেওয়া দরকার। আজকের এই অনিশ্চয়তা ভরা জীবনে যাতে হঠাৎ করে আসা কোনো অসুবিধা আপনার বাচ্চার উপর কোনো নেতিবাচক প্রভাব না ফেলে, তার জন্যে শিশুর জন্মের সময় থেকেই পূর্ব পরিকল্পনা করে রাখা উচিত।

আজকে আমাদের আলোচনার বিষয় হলো কিভাবে আপনি বাচ্চার জন্মের আগে সঠিক ভাবে আর্থিক পরিকল্পনা নেবেন বা কোন কোন বিষয়ের উপর এখন থেকে লক্ষ্য রাখবেন, তার গাইড লাইন।

১. স্বাস্থ্যবীমা

১. স্বাস্থ্যবীমা

আমরা অনেকেই স্বাস্থ্যবীমা করিয়ে রাখি। সরকারি বা বেসরকারি প্রতিষ্ঠান থেকে নানা প্ল্যান আমাদের বেছে নেওয়ার জন্যে বলা হয়। লোভনীয় প্ল্যান দেখতে হলেও অনেক ক্ষেত্রে যখন দরকার আসে, তখন সম্পূর্ণ সহায়তা পাওয়া যায় না। তাই শুরুর দিন থেকেই দেখে নিতে হবে এই সময় বা তার পরে কি কি খরচ হতে পারে আর তার কতটা আপনার স্বাস্থ্যবীমা আপনাকে দিচ্ছে।

২. কেনাকাটা

২. কেনাকাটা

কেনাকাটা করতে কে না ভালোবাসে? আর এখন শপিং মল বা অনলাইন দুনিয়ার দৌলতে এক ছাতার তলায় সব কিছু পাওয়া যায়। কিন্তু তাই বলে লাগাম ছাড়া কেনাকাটি করলে আখেরে আপনারই অর্থব্যয় হবে। তাই কেনাকাটার আগে বাজেট ঠিক করে নিন। কোন কোন জিনিস কেনার দরকার আছে, জরুরী ভিত্তিতে সেগুলোকে আগে কিনে নিন। মনে রাখবেন পূর্বপরিকল্পিত বাজেট থাকলে আখেরে আপনারই লাভ।

৩. আপতকালিন দরকারে

৩. আপতকালিন দরকারে

শুনতে খারাপ লাগলেও মানুষের সব দিন সমান যায় না। বিপদ কখন আসে তাও আগে থেকে জানা যায় না। তাই চেষ্টা করুন প্রতি মাসের খরচের মধ্যে থেকে ইমার্জেন্সী দরকারের জন্যে একটা ছোট পরিমাণ টাকা সরিয়ে রাখতে। অসময়ে এই টাকাই আপনার মনোবল অনেকটা বাড়িয়ে দেবে।

৪. ব্যাংক একাউন্ট খুলুন

৪. ব্যাংক একাউন্ট খুলুন

অনেকেই ভাবেন বাচ্চা ছোট আছে, এখনই ব্যাংক একাউন্টের কি দরকার? এই ধারণা সম্পূর্ণ ভুল। শুরুর দিন থেকে ওর নামে ব্যাংক একাউন্ট খুলে রাখুন। প্রতি মাসে একটা ছোটো পরিমাণ টাকা, সে যতই ছোট হোক না কেন, জমান। এখন প্রতিটা দেশের সরকার ছোটদের বিকাশের জন্যে নানা প্ল্যান নিয়ে আসছে। কখন কোনটা আপনার আদরের সন্তানের ভবিষ্যতের জন্যে কাজে লাগবে, আপনি নিজেও বুঝতে পারবেন না।

৫. পড়াশুনার খরচ

৫. পড়াশুনার খরচ

আজকের দুনিয়ায় নিজের পায়ে দাঁড়াতে গেলে সবাইকেই পড়াশুনা শিখতে হয়। আর দিন যত যাবে, শিক্ষাক্ষেত্রে খরচ আগের থেকে বাড়বে। আপনি কখনোই ভাবতে পারেন না যে দশ বছর আগে স্কুল বা কলেজের ফী যা ছিল, দশ বছর পরেও তাই থাকবে। তাই হঠাৎ করে যাতে আপনাকে দিশাহারা হতে না হয় তার জন্যে এখন থেকে পড়াশুনার জন্যে টাকা জমানো শুরু করুন।

৬. অন্যান্য দিক

৬. অন্যান্য দিক

ছেলে বা মেয়ের বিয়ের জন্যে চাইলে অল্প অল্প করে এখন থেকেই টাকা জমানো শুরু করতে পারেন। মনে রাখবেন, যত আগে থেকে আপনি শুরু করবেন, ততো কম পরিমাণ টাকাই আপনাকে একসময় একটা ভালো রিটার্ন দেবে। অনেক সময় আমরা দরকারে ধার করি বা লোন নি, চেষ্টা করুন আপনার নবজাতক আসার আগে বা বড়ো হতে হতেই সেই ধার বা লোন যেন আপনি মিটিয়ে দিতে পারেন। এতে আপনার এবং আপনার সন্তান, দুজনের উপর থেকেই চিন্তা এবং দায়ভার কমবে।

পরিবারে নতুন সদস্য আগমনের আগে সঞ্চয়ের কয়েকটি সহজ টিপস

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here